Breaking News
Loading...
Home / ভিডিও / দেবরের বিয়েতে ভাবির মাথা নষ্ট নাচ , ভিডিওটি না দেখলে চরম মিস করবেন ।

দেবরের বিয়েতে ভাবির মাথা নষ্ট নাচ , ভিডিওটি না দেখলে চরম মিস করবেন ।

Loading...

বি: দ্র : ই্উটিউব থেকে প্রকাশিত সকল ভিডিওর দায় সম্পুর্ন ই্উটিউব চ্যানেল এর ।

এর সাথে আমরা কোন ভাবে সংশ্লিষ্ট নয় এবং আমাদের পেইজ কোন প্রকার দায় নিবেনা।
ভিডিওটির উপর কারও আপত্তি থাকলে তা অপসারন করা হবে। প্রতিদিন ঘটে যাওয়া নানা রকম ঘটনা আপনাদের মাঝে তুলে ধরা এবং সামাজিক সচেতনতা আমাদের লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য ।

দেখুন তার পর মন্তব্য করুন পরবর্তী আপডেট পেতে পেইজ এ লাইক, কমেন্ট এবং শেয়ার করে আমাদের সাথেই থাকবেন।

ভিডিও টি নিছে দেওয়া হল।

আরো পড়ুন

কাঁচা রসুনের যে ১০টি বিস্ময়কর ব্যবহার আপনি জানেন না!
রসুনের স্বাস্থ্য উপকারিতা আজকাল কমবেশি আমরা সকলেই জানি। আর বাঙলি রান্নায় তো রসুনের ব্যবহার আছেই আছে। ফলে আমাদের প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় অবশ্যই থাকে রসুন। এছাড়া হৃৎপিণ্ড ভালো রাখতে অনেকেই খালি পেটে কাঁচা রসুন খেয়ে থাকেন। কিন্তু কাঁচা রসুনের আর কোন ব্যবহার জানেন কি আপনি? যেমন, কাঁচা রসুন ব্রণ বা গলা ব্যথা সারায় দ্রুত, চুল পড়া কমিয়ে নতুন চুল গজায়, আবার বেশী মাছ ধরতে বা আঠা হিসাবেও আছে এর ব্যবহার! চলুন, জেনে নিই কাঁচা রসুনের এমনই বিস্ময়কর ১০টি ব্যবহার।
১) জ্বর ঠোসা
জ্বর হলে, বিশেষ করে রাতে জ্বর হতে থাকলে ঠোঁটের কোণে জ্বর ঠোসা অনেকেরই হয়। আর এতে মারাত্মক ব্যথাও হয়। জ্বর ঠোসা সারাতে কাঁচা রসুনের রস আক্রান্ত স্থানে লাগান। ব্যথা কমবে আর সেরেও যাবে দ্রুত।

২) ব্রণ
দ্রুত ব্রণ সারাতে বা ব্রণের ব্যথা কমাতে আক্রান্ত স্থানে কাঁচা রসুন বা কাঁচা রসুনের রস লাগান। দ্রুত নিরাময় হবে।

৩) পায়ের চুলকানি
সারাদিন জুতো পরে থাকার পর অনেকেরই পায়ে র‍্যাশ ও চুলকানি হয়। এটা সারাতে উষ্ণ পানিতে রসুন ও সামান্য লবণ দিয়ে পা ভিজিয়ে রাখুন আধা ঘণ্টা। তারপর সাবান ও সাধারণ পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

৪) গলা ব্যথা
দ্রুত গলা ব্যথা নিরাময় করতে এক কোয়া কাঁচা রসুন চুষে চুষে খেয়ে নিন। গন্ধ ভালো না লাগলে এরপর দুধ খেয়ে নিন এক গ্লাস। কাঁচা রসুনের রস এভাবে আস্তে আস্তে খেলে তা গলা ব্যথায় খুবই উপকারী।

৫) ত্বকের সমস্যা
ত্বকের যে কোন সমস্যা যেমন ফোঁড়া বা ফাংগাল ইনফেকশন ইত্যাদি সারাতে রসুন খুবই সহায়ক। কেবল আক্রান্ত সাথে কাঁচা রসুনের রস লাগালেই হবে। ১০/১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলবেন।

৬) হাইপারটেনশন
এই সমস্যা নিরাময়ে রোজ সকালে খালি পেটে কয়েক কোয়া থেঁতো রসুন খেয়ে নিন।

৭) বেশী মাছ ধরতে
মাছ ধরতে খুব ভালোবাসেন? বেশী মাছ ধরার জন্য টোপের মাঝে দিয়ে দিন কাঁচা রসুন। লোভে লোভে প্রচুর মাছ উপস্থিত হবে।

৮) গাছ রক্ষায়
পোকামাকড়ের হাত থেকে গাছ রক্ষায় রসুন দারুণ উপকারী। মিহি থেঁতো করা কাঁচা রসুন, পানি ও সামান্য তরল সাবান একসাথে মিশিয়ে স্প্রে বোতলে ভরে রাখুন। এটা কিছুদিন পর পর গাছে স্প্রে করুন পোকামাকড় দূরে রাখতে।

৯) আঠা হিসাবে!
রসুন ধরার পর লক্ষ্য করেছেন যে হাত কেমন আঠা আঠা হয়ে যায়? কাগজ সহ ছোট খাট অনেক কাজেই আপনি আঠা হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন রসুন!

১০) নতুন চুল গজাতে
চুল পড়ে যাচ্ছে খুব? মাথায় নতুন চুল গজাতে আক্রান্ত স্থানে নিয়মিত রসুন ঘষুন। সাড়া রাত রেখে সকালে ধুয়ে ফেলুন। কিছুদিনের মাঝেই নতুন চুল গজাবে।

২৪ ঘণ্টায় ক্যানসার বিনাশ করবে আঙুরের বীজ
ব্রিটিশ মেডিকেল সাময়িকী সম্প্রতি ক্যানসারের চিকিৎসার একটি জনপ্রিয় পদ্ধতির ক্ষতিকর দিকগুলো প্রকাশ করেছে, যা মানুষকে সুস্থ করার চেয়ে মৃত্যুর কোলে ঠেলে দেয়। এ পদ্ধতি গ্রহণ করে কয়েক দশক ধরে অনেকে মানুষ মারা গেছেন। আপনিও হয়তো ভাবেননি এটার দোষ এত! ওই চিকিৎসা পদ্ধতির নাম কেমোথেরাপি।

মেডিসিন, চিকিৎসা ও ওষুধ প্রতিষ্ঠানের কাজ মানুষকে বাঁচানো, মেরে ফেলা নয়। তাই এর জন্য নতুন করে ভাবতে হবে।ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার মেডিসিন ও ফিজিওলজি বিভাগের জ্যেষ্ঠ অধ্যাপক চিকিৎসক হার্ডিন বি জোনস তার এক গবেষণায় খুঁজে পেয়েছেন, ‘কোমো আদৌ কাজ করে না’। ক্যানসার চিকিৎসা করানো রোগীদের আয়ু নিয়ে ২৫ বছর ধরে গবেষণা করে তিনি এ তথ্য খুঁজে পেয়েছেন।চিকিৎসক জোনস দাবি করেছেন, যেসব রোগী কেমোথেরাপি নেন, তারা ব্যথায় মারা যান। অন্য কোনো চিকিৎসা পদ্ধতির চেয়ে কেমো নেওয়া রোগীরা দ্রুত মারা যান।

কিন্তু ক্যানসার চিকিৎসার জন্য প্রাকৃতিক প্রতিকারের চিত্র পুরো ভিন্ন। এগুলো সুপার কার্যকরী ও কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। এ প্রাকৃতিক প্রতিকারের পদ্ধতি থেকে চোখ দূরে রেখেছে বিশ্ববাসী, এমনকি গণমাধ্যমও। এগুলো মানুষের সামনে আনা খুবই জরুরি।

এ প্রাকৃতিক প্রতিকারের উপাদান মাত্র দুই দিনেই (২৪ ঘণ্টায়) ক্যানসার কোষ ধ্বংস করে। ক্যানসারে আক্রান্ত রোগীর আরোগ্য লাভের জন্যও এটার ব্যবহার বেশ কাজে দেয়।

যুক্তরাষ্ট্রের কেন্টাকি বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক আঙুরের বীজের উপাদান নিয়ে গবেষণা করেছেন। তারা খুঁজে পেয়েছেন, ৭৬ শতাংশ লিউকেমিয়া ও ক্যানসার কোষ ধ্বংস করে আঙুরের বীজ। বৈজ্ঞানিক পরীক্ষাগারও এটা সমর্থন করেছে।

পরে গবষেণাটি আমেরিকান অ্যাসোসিয়েশন ফর ক্যানসার রিসার্চ সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়। এতে দেখা গেছে, আঙুরের বীজে থাকা উপাদান নিউকোমিয়া কোষকে ধ্বংস করে। আঙুরের বীজে জেএনকে নামের এক ধরনের প্রোটিন থাকে যা ক্যানসারের জন্য দায়ী কোষগুলোকে দ্রুত ধ্বংস করে দেয়।

গবেষকরা জানান, ক্যানসার চিকিৎসা দেওয়া হয় এমন প্রতিষ্ঠানগুলো এ রোগকে কীভাবে দুরারোগ্য ব্যধি হিসেবে প্রমাণ করা যায় তা নিয়ে চেঁচামেচি করছে। তারা মানুষের মধ্যে ভয় ও আতঙ্ক ছড়িয়ে দিচ্ছে যে, ক্যানসার মৃত্যুর সমান রোগ।

তবে এ গবেষণা সমর্থন করেছে, যতটা ভাবি, ততটা বিপজ্জনক রোগ নয় ক্যানসার। আমরা যদি সঠিক পস্থায় ও গুরুত্ব দিয়ে ঠিক চিকিৎসা নিই, তাহলে মৃত্যুর মধ্যে দিয়ে জীবন শেষ হবে না।

এর আগে ব্রিটিশ ও ইসরায়েলের গবেষকরা জানান, মানুষ ক্যানসারে নয়, মরে কেমোথেরাপিতে। নতুন এ গবেষণা তাদেরই সমর্থন করল।

Loading...

About Barak Obama

Check Also

কিভাবে পারল মেয়েটা এমন করতে ছিঃ ছিঃ,দেখুন ভিডিও তে।

Loading... কিভাবে পারল মেয়েটা এমন করতে ছিঃ ছিঃ, ভিডিওটি দেখুন একদম নীচে। কাঁচা রসুনের যে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

[X]
Loading...